ঘোষনা:
শিরোনাম :
আওয়ামীলীগ হিন্দুদের দল, ভারতের চর এসব ট্যাবলেটে এখন আর কাজ হয়না,তথ্যমন্ত্রী হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় ৬ বছর পূর্তিতে,কূটনীতিকরা নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা বিকেএসপিতে ব্লু খেতাব অর্জন,দেশসেরা নারী আরচার নীলফামারীর দিয়া সিদ্দিকী জাতি হিসেবে আমাদের সক্ষমতাকে সবসময় অবমূল্যায়ন করে সমালোচকরা বললেন,প্রধানমন্ত্রী খাগড়াছড়িতে ৭ম টিআরসি ব্যাচের প্রশিক্ষণ সমাপনী নীলফামারীর ডিমলায় মাদকদ্রব্যের রোধকল্পে কর্মশালা ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে রায়পুরায় কাভার্ডভ্যান চাপায় নিহত,৩ আহত ৫ চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত ৭০ জন  জলঢাকা পৌরসভার ৭৯ কোটি ৭৯ লক্ষ ১ হাজার ৭ শত ৩০টাকার বাজেট ঘোষনা কিশোরগঞ্জে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ণে কর্মশালা
নীলফামারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগির জন্য এমপি নূরের ফল উপহার।

নীলফামারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগির জন্য এমপি নূরের ফল উপহার।

মোঃ হারুন উর রশিদ,স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্ত রোগীদের মাঝে সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূরের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সুস্বাদু ফল পাঠানো হয়। আজ রবিবার(২১ জুন) বেলা ১২টার দিকে হাসপাতাল চত্ত্বরে সিভিল সার্জন রনজিৎ কুমার বর্মনের কাছে তাঁর পক্ষ থেকে ফল হস্তান্তর করেন বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশনের জেলা সভাপতি ডা. মমতাজুল ইসলাম মিন্টু।
সংসদ সদস্যের পাঠানো ওই ফলের মধ্যে ছিল ২০ কেজি আনারস, ১০ কেজি মালটা, ৩ কেজি আপেল ও ১০০ লেবু।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মেজবাহুল হাসান চৌধুরী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ রহমান, জেলা উদীচী শিল্পী গোষ্ঠির সভাপতি মনসুর ফরিকর, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কামরুজ্জামান জামান, সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী তরিকুল ইসলাম, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ সরকার প্রমুখ।

সূত্র মতে, নীলফামারী-২ আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জান নূরের অন্যান্য কার্যক্রমের পাশাপাশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্তদের মাঝে প্রতি সপ্তাহে একবার করে মৌসুমি বিভিন্ন ফল প্রদান অব্যাহত থাকবে।

সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্মন বলেন, সংসদ সদস্যের এমন উদ্যোগে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্ত রোগিরা উপকৃত হবেন।
তিনি আরও জানান, নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের ১০৮ শয্যার আইসোলেশন ওয়ার্ডে ১৭জন করোনা রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে। আজ রবিবার পর্যন্ত জেলায় করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ২৯৫জন। এদের মধ্যে সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৪৩জন। মারা গেছেন ৬জন। জেলার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মধ্যে সৈয়দপুরে ৮ জন, জলঢাকায় ৫ জন, ডিমলায় ৭ জন ও কিশোরীগঞ্জে ১জন চিকিৎসাধীন আছেন। বাকিরা তাদের নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST