ঘোষনা:
শিরোনাম :
উন্নত বাংলাদেশ গঠনের সাথে কিশোরগঞ্জ উপজেলাও হবে উন্নয়নের রোল মডেল, জেলা প্রশাসক বর্তমান সরকারকে পদত্যাগ করে নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া কোন নির্বাচনে বিএনপি যাবেনা,সৈয়দপুরে বিএনপি মহাসচিব। সৈয়দপুরে বিএনপি মহাসচিবের আগমনে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনা ডিমলায় ফ্রি পিপি আর ভ্যাকসিন কর্মসূচী শুরু । বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ মনোনয়ন পেয়েছেন তপু, মেহেদী এবং দিয়া সিদ্দিকী। ডিমলায় ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ। নীলফামারীতে বোরো ধান ও চাল সংগ্রহের উদ্বোধন কিশোরগঞ্জে কালবৈশাখী ঝড়ে লন্ডভন্ড কয়েকটি গ্রাম সাতক্ষীরায় শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ, অভিযুক্ত দুই শিশুসহ এক মা আটক অস্তিত্ব রক্ষা করতে হলে বিএনপিকে নির্বাচনে যেতে হবে,তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী
নীলফামারীতে ৪৪০ টাকা ছাড়া মিলছে না টিসিবির পণ্য,ভোগান্তীতে ক্রেতারা

নীলফামারীতে ৪৪০ টাকা ছাড়া মিলছে না টিসিবির পণ্য,ভোগান্তীতে ক্রেতারা

মিলছে না টিসিবির পণ্য, ভোগান্তীতে ক্রেতারা।

মোঃ হারুন উর রশিদ, স্টাফ রিপোর্টার,
মহামারি করোনার সংক্রমণের পর থেকে নীলফামারীতে চাল, ডাল, তেলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতিতে বিপাকে পড়েছে সাধারণ মানুষ। তাই প্রতিনিয়ত বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর পণ্য ক্রয়ের জন্য দীর্ঘ লাইনে বাড়ছে দরিদ্র,নিম্ন ও মধ্যবিত্তের ভিড়। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে ট্রাকের মাধ্যমে বিক্রি হচ্ছে চিনি, মুশুরের ডাল, সয়াবিন তেল এবং পেঁয়াজ।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারী/২২) নীলফামারী সদরের নেসকো বিদ্যুৎ অফিসের সামনে সরেজমিনে দেখা যায়, টিসিবির পণ্য ক্রয়ে ভিড় জমিয়েছেন সর্বস্তরের মানুষ।

কয়েকজনের সাথে কথা হলে টিসিবি পণ্যের ডিলার মেসার্স অভি এন্টারপ্রাইজ এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, তেল, ডাল, চিনি ও পেঁয়াজ মিলে ৪ শত ৪০ টাকার একটি প্যাকেজ ছাড়া মিলছেনা পণ্য। টাকা কম থাকায় পণ্য না কিনে অনেককেই ফিরে যেতে হচ্ছে। করোনা মহামারীর সময়ে সামাজিক দূরত্বের নেই কোন রকম বালাই। যে কারণে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকির পাশাপাশি সাধারণ ক্রেতাদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

তেল, ডাল,চিনি ও পেঁয়াজ মিলে ৪৪০ টাকার প্যাকেজ নিয়ে যাচ্ছেন ক্রেতা।

 

২ নং ওয়ার্ডের মুক্তা বেগম বলেন, সোমবার টিসিবির পণ্য ক্রয়ের জন্য সিরিয়াল দিলেও পণ্য শেষ হয়ে যাওয়ায় খালি হাতেই বাড়িতে ফিরতে হইছে। তাই আজ সকাল-সকাল এসে লাইনে দাঁড়াইছি। প্রথম দুই চারজন চিনি পাইলেও পরে আর চিনি পাওয়া যায় না। বাজারে দাম বেশী তাই কম দামের আশায় লাইন খাটিও চিনির দেখা পাওয়া যায় না। তবে মাস্ক থাকলেও সামাজিক দূরত্ব কেউ মানছেনা।

লম্বা লাইনে ব্যাগ হাতে দাঁড়িয়েছিলেন পৌরসভা ১ নং ওয়ার্ডের ৫৮ বছর বয়সি বৃদ্ধা জাহেরুন নেছা। তিনি বলেন, হামরা গরীব মানুষ। খালি চিনি চাওছো তা মোক না দেয়। ওমরা কয়ছে খালি একটা নাকি বিক্রি হয়না। শুধু জাহেরুন নেছাই নন, জরিনা বেগম সহ অনেকেই টিসিবির তেল, ডাল, চিনি কেনার জন্য ব্যাগ হাতে এমনভাবে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

অনিয়মের বিষয়ে জানতে টিসিবির ডিলার মেসার্স অভি এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী সত্যেন্দ্র নাথ রায়ের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন তুলেন নাই।

টিসিবি বিক্রয়ে অনিয়ম, সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থবিধির বিষয়ে জানতে চাইলে ডেপুটি কালেক্টর অফিসের নেজারত শাখার (এনডিসি) নির্বাহী মেজিস্ট্রেট রমিজ আলম বলেন, সপ্তাহে চার দিন টিসিবির পণ্য বিক্রয়ের নির্দেশনা আছে। অবশ্যই সকলকে মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব মেনে টিসিবির পণ্য বিক্রি ও ক্রয় করতে হবে। কেউ যদি নিয়ম-নীতি না মেনে পণ্য বিক্রি করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, টিসিবির ভ্রাম্যমাণ ট্রাকসেল কার্যক্রমে চিনি প্রতি কেজি ৫৫ টাকা, মশুরির ডাল প্রতি কেজি ৬০ টাকা, সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১১০ টাকা ও পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৩০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST