ঘোষনা:
শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় ১০ম শ্রেণির স্কুল ছাত্রীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার কুন্দপুকুর ইউনিয়নকে উন্নয়নের ধারায় ফিরিয়ে আনতে লালু সমর্থক গ্রূপের সাথে মতবিনিময়। সাতক্ষীরার কলারোয়ার সোনাবাড়ীয়া ইউনিয়নে পুনরায় ভোট গ্রহণের দাবীতে মানববন্ধন জলঢাকায় ৫২ বোতল ফেন্সিডিল সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নীলফামারীতে ইউনিয়ন উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির দ্বি-মাসিক সভা অনুষ্ঠিত।  সিলেটের ব্যাংকের বুথে লুটপাটের ঘটনায় ৪ জনের রিমান্ড মঞ্জুর ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ২ উপসর্গ নিয়ে ২ , মৃত্যু ৪ চট্টগ্রামে করোনায় মৃত্যু ৩,আক্রান্ত ১৬৫ সাতক্ষীরয় পানি নিষ্কাশন ও খাল খননের দাবীতে  পানিবন্দী মানুষের মানববন্ধন শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন অভিনেতা বুলবুল আহমেদের স্ত্রী
আওয়ামী লীগের জেলায় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকে প্রার্থী হতে পাবেন সংসদরা,সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের জেলায় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকে প্রার্থী হতে পাবেন সংসদরা,সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ঢাকা প্রতিবেদক ,
জেলা পর্যায়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হতে পাবেন সংসদ সদস্যরা (এমপি)।তবে উপজেলাতে প্রার্থী না হওয়ার আহ্বান সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।আজ শুক্রবার সকালে রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগের উপজেলা পর্যায়ের কমিটিতে সংসদ সদস্যদের (এমপি) সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
তিনি বলেন, যারা এমপি হতে পারেননি তারা যেন নেতা হওয়ার সুযোগ পায়। তবে জেলা পর্যায়ে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক হতে পারবেন এমপিরা। কারণ কেন্দ্রের সঙ্গে তাদের সমন্বয় করতে হয়। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা এ বিষয়ে নির্দেশ দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এস এম কামাল উপস্থিত ছিলেন।
আগামী কাউন্সিলে আওয়ামী লীগের কমিটি বর্ধিত করার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার মালিক শেখ হাসিনা। তিনি কাকে নেতা বানাবেন কাকে বাদ দেবেন সেটা নেত্রীর এখতিয়ার।
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলে বিএনপিসহ নিবন্ধিত সব রাজনৈতিক দলকে দাওয়াত করবে। ১৪ দলকেও দাওয়াত দেয়া হবে।
ওবায়দুল কাদের বলেন, যেহেতু মুজিব বর্ষ কালারফুল করা হবে সেহেতু এবার সম্মেলন তেমন কালারফুল হবে না। এ ছাড়া বিদেশিদেরও দাওয়াত করা হবে না। কারণ মুজিব বর্ষ পালনের মূল অনুষ্ঠানে অনেক বিদেশি অতিথিকে দাওয়াত দেয়া হবে।
তিনি আরও বলেন, কাউন্সিলে যে পরিমাণ কাউন্সিলর থাকবে তার সমপরিমাণ ডেলিগেট থাকবে। দলের গঠনতন্ত্র ও ঘো্রষণাপত্রে সংশোধন, সংযোজন ও বিয়োজনের জন্য জেলা-উপজেলা পর্যায়ে চিঠি দেয়া হয়েছে। তারা তাদের চিঠিতে মতামত জানিয়ে দিতে পারেন।
সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নৌকার আদলে সুবিশাল মঞ্চ করা হবে। সেই মঞ্চে আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। কেন্দ্রীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর। এছাড়া আগামী ৩০ নভেম্বর মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST