ঘোষনা:
শিরোনাম :
পদ্মা সেতু হওয়ায় বিএনপি উদভ্রান্তের মত কথা বলছে,চট্টগ্রামে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বানভাসি মানুষের পাসে লিয়ন চৌধুরী নীলফামারীতে মধ্য রাতে মাতলামি; প্রতিবাদ করায় গুরুতর রগকাটা জখম, থানায় এজাহার। নীলফামারীতে এক মাস ব্যাপি পুনাক তাঁত শিল্প ও পণ্য মেলার শুভ উদ্বোধন পাহাড়ে সন্ত্রাস দমনে এপিবিএন’র টহল শুরু শিক্ষক হত্যা ও কলেজ অধ্যক্ষকে নির্যাতনের প্রতিবাদে নীলফামারীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান। আওয়ামীলীগ হিন্দুদের দল, ভারতের চর এসব ট্যাবলেটে এখন আর কাজ হয়না,তথ্যমন্ত্রী হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় ৬ বছর পূর্তিতে,কূটনীতিকরা নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা বিকেএসপিতে ব্লু খেতাব অর্জন,দেশসেরা নারী আরচার নীলফামারীর দিয়া সিদ্দিকী জাতি হিসেবে আমাদের সক্ষমতাকে সবসময় অবমূল্যায়ন করে সমালোচকরা বললেন,প্রধানমন্ত্রী
নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশ পত্রে তারিখ ভুল, কান্নায় ভেঙে পড়েন জান্নাতুল।

নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশ পত্রে তারিখ ভুল, কান্নায় ভেঙে পড়েন জান্নাতুল।

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি, জান্নাতুল ফেরদৌস নামের এক প্রার্থী রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে অফিস সহায়ক পদে মৌখিক পরীক্ষা দিতে এসেছেন কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে। দোতালায় উঠতে গেলে তাকে আটক করে দেন নিরাপত্তা প্রহরীরা। পরীক্ষা আছে বলতেই তারা রেগে গিয়ে বলেন তিনদিন আগেই পরীক্ষা হয়ে গেছে। আজ এসেছেন কেন? এ সময় জান্নাতুল প্রবেশপত্র বের করে দেখান ২৩ আগস্ট সকাল ৯টায় তার পরীক্ষার সময় দেয়া আছে। এ নিয়ে প্রহরীদের সঙ্গে তার বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। অনেক চেষ্টা করে দোতলায় উঠে জানতে পারেন তিনদিন আগে নিয়োগ পরীক্ষা শেষ হয়ে ফলাফলও প্রকাশ হয়ে গেছে। আজ চলছে নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ খবর শুনেই কান্নায় ভেঙে পড়েন কুষ্টিয়ার প্রত্যন্ত গ্রাম খোকসার সেনগ্রাম থেকে আসা হতদরিদ্র পরিবারের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস।

ঘটনাটি স্বীকার করে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ও নিয়োগ কমিটির আহ্বায়ক মুহাম্মদ ওবাইদুর রহমান বলেন, হয়ত লেখায় ভুলের কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে।

কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের রাজস্ব প্রশাসন শাখায় ১৫ জন অফিস সহায়ক ও ১ জন নিরাপত্তা প্রহরী পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। আবেদনকারীদের ১৭ আগস্ট থেকে ২০ আগস্ট পর্যন্ত মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হয়। ২১ আগস্ট বিকেলে পরীক্ষার ফলাফলও প্রকাশ করা হয়েছে এবং ২৩ আগস্ট উত্তীর্ণ প্রার্থীদের যোগদান করতে বলা হয়।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের রাজস্ব প্রশাসন শাখায় অফিস সহায়ক পদে আবেদন করেন কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার সেনগ্রাম দক্ষিণ আমবাড়িয়া গ্রামের তাজেম আলী বিশ্বাসের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস। আবেদনের প্রেক্ষিতে তাকে জেলা প্রশাসন কার্যালয় থেকে প্রবেশপত্র পাঠানো হয়। প্রবেশপত্রে মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে ২৩ আগস্ট সকাল ৯টায় কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে আসতে বলা হয়।

জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, সকাল ৮টায় এখানে এসেছি। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পরীক্ষা দিতে উপরে উঠতে চাইলে নিরাপত্তা প্রহরীরা আমার সঙ্গে খুব খারাপ আচরণ করেন। তারা আমাকে ওখান থেকে বের করে দিয়ে বলেন, তিনদিন আগেই পরীক্ষা হয়ে গেছে। আজ এসেছেন কেন? আমি তখন প্রবেশপত্র বের করে তাদের দেখাই যে আমাকে ২৩ আগস্ট সকাল ৯টায় সময় দেয়া হয়েছে।

এক পর্যায়ে কোনো একজনের সঙ্গে কথা বলে তারা আমাকে উপর তলায় উঠতে দেন। আমি দোতলার প্রত্যেকটি রুমে রুমে গিয়ে আমার বিষয়টি বলেছি। সবাই আমার সঙ্গে খুব খারাপ ব্যবহার করে বের করে দিয়েছেন। তারা বলেছেন এখন তাদের কিছুই করার নেই।

জান্নাতুল বলেন, অনেক স্বপ্ন নিয়ে ২৫ কিলোমিটার পথ পাঁড়ি দিয়ে এসেছিলাম। এখন মনে হচ্ছে এসব চাকরি আমাদের মতো দরিদ্র পরিবারের মেয়েদের মানায় না। শুনতে পারলাম আগে থেকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত হয়ে গেছে।

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ও নিয়োগ কমিটির আহ্বায়ক মুহাম্মদ ওবাইদুর রহমান বলেন, একাধিক প্রার্থীর এমন ঘটনা ঘটেছে বলে আমার জানা নেই। আমার কাছে একজন এসে প্রবেশপত্র দেখিয়েছেন। এটা হয়ত মিস হয়ে যেতে পারে, ভুলও হয়ে যেতে পারে। হয়ত লেখায় ভুলের কারণে ২০ তারিখের জায়গায় ২৩ তারিখ হয়ে গেছে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST