ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। খুলনায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় অর্থদণ্ড ও কারাদণ্ড প্রদান । জলঢাকায় হরিজন পল্লীতে তুরিন আফরোজ কিশোরগঞ্জে ভাতাভোগীদের টাকা হাতিয়েছে প্রতারক চক্রটি জলঢাকায় আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর বৃক্ষ রোপন ও চারাগাছ বিতরণ নীলফামারীতে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বৃক্ষরোপন করেছে আনসার ওভিডিপি। সৈয়দপুরে রেলের তদন্ত প্রতিবেদন,নিজেকে বাঁচাতে উপজেলা চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন । পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে করোনা আক্রান্ত মাদ্রাসা শিক্ষিকার মৃত্যু। বাংলাদেশ স্কাউটস এর স্ট্রাটেজিক প্ল্যান ও গ্রোথ মূল্যায়ন ওয়ার্কশপ বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ১, আহত ২
আবহমান বাংলার প্রকৃতিক সৌন্দর্যের নৈসর্গিক লীলাভূমি পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ি।

আবহমান বাংলার প্রকৃতিক সৌন্দর্যের নৈসর্গিক লীলাভূমি পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ি।

খাগড়াছড়ি  জেলা প্রতিনিধি ,
আবহমান বাংলার প্রকৃতিক সৌন্দর্যের নৈসর্গিক লীলাভূমি পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ি। বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বকোণে এর অবস্থান। খাগড়াছড়ির উঁচু নিচু অসংখ্য পাহাড় আর পাহাড়ের বুকে নাম না জানা হাজারো গাছের সবুজ পাতায় সজ্জিত পাহাড়কে মনে হয় যেন সবুজের অভয়ারণ্য। উঁচু-নিচু ঢেউ তোলা সবুজ পাহাড়ের বুক চিরে কালো পিচের সর্পিল রাস্তা আর পাহাড়ের অপরূপ সৌন্দর্য যে কোনো পর্যটকের মন কাড়বে এ কথা নিশ্চিতভাবে বলা যায়। পাহাড়, ঝর্ণা আর চা বাগান মিলেমিশে একাকার হয়ে গেছে এখানকার সৌন্দর্য।

 

সবুজে ঘেরা খাগড়াছড়ির প্রবেশমুখেই রামগড় চা বাগান। আরেকটু এগুলেই মাটিরাঙ্গার রিছাং ঝর্ণা। তারপরেই রয়েছে আলুটিলার রহস্যময় সুরঙ্গ। মনকাড়া এসব পর্যটন কেন্দ্র যেমন আপনাকে আন্দোলিত করবে তেমনি ঈদে এনে দেবে বাড়তি আনন্দ। ৪০ কিলোমিটার দূরত্বের মধ্যে এসব পর্যটন স্পট ঘুরে আপনি যেতে পারবেন জেলা সদরের প্রাণকেন্দ্রে নয়নাভিরাম জেলা পরিষদ পার্ক, মায়াবীনি লেক, হেরিটেজ পার্ক।

জেলা শহর ছাড়িয়ে পানছড়িতে রয়েছে শান্তিপুর অরণ্য কুটির। দীঘিনালার তৈদুছড়া আর হাজাছড়া হতে পারে এবারের ঈদে আপনার বিনোদনের জন্য সেরা পছন্দ। খাগড়াছড়ি ছাড়িয়ে আরও বিনোদনের প্রত্যাশায় আপনি পাড়ি জমাতে পারেন পাশের জেলা রাঙ্গামাটির সাজেকেও।

খাগড়াছড়ির প্রাকৃতিক সৌন্দর্য মোহিত করবে যেকোনো পর্যটককে। পাহাড়ের অবারিত সৌন্দর্যের পাশাপাশি পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর বৈচিত্রময় জীবন আচার আপনাকে নিয়ে যাবে ভিন্ন এক জগতে। দিগন্তজোড়া সবুজের সমারোহ খুব সহজেই আপন করে নিবে প্রকৃতিপ্রেমী ও ভ্রমণ পিপাসুদের। পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে সবুজে আবৃত খাগড়াছড়ির সতেজ প্রকৃতির হাতছানি। পর্যটন শিল্পের অপার সম্ভাবনাময় পাহাড়ি কন্যা খাগড়াছড়ি যেন মুখিয়ে আছে পর্যটকদের অপেক্ষায়।

ঈদকে সামনে রেখে ইতিমধ্যে জেলা শহরের প্রায় সকল হোটেলেই অগ্রিম বুকিং হয়ে গেছে বলে জেলা হোটেল মালিক সমিতি সূত্রে জানা গেছে। এবার ঈদের লম্বা ছুটিতে প্রচুর পর্যটকের আগমনে মুখরিত হবে পাহাড়ি কন্যা খাগড়াছড়ি এমনটাই মনে করছে হোটেল কর্তৃপক্ষ। বছরজুড়ে পর্যটকের আনাগোনা থাকলেও ঈদকে কেন্দ্র করে সেই সংখ্যা কয়েকগুণ বাড়বে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্টরা।

খাগড়াছড়ি পর্যটন মোটেলের ব্যবস্থাপক এ কে এম রফিকুল ইসলাম জানান, ইতিমধ্যে ঈদের বুকিং শুরু হয়েছে। আশা করছি অন্যান্য বছরের ন্যায় এবারের ঈদের ছুটিতে খাগড়াছড়িতে পর্যটকের ঢল নামবে। ঈদকে কেন্দ্র করে ভালো ব্যবসা করবে হোটেল ব্যবসায়ীরা।

ঈদকে সামনে রেখে খাগড়াছড়িতে আগত পর্যটকদের নিরাপত্তা দিতে খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশের পাশাপাশি কাজ করছে জেলা ট্যুরিস্ট পুলিশ। পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ইতিমধ্যেই টহল জোরদার করা হয়েছে জানিয়ে খাগড়াছড়ি জেলা ট্যুরিস্ট পুলিশের ইনচার্জ সন্তোষ ধামাই জানান, ঈদের পরের তিনদিন পর্যন্ত এ টহল চলবে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST