ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে দ্বীপ্তমান মানবউন্নয়ন ও সমাজকল্যাণ সংস্থার আলোচনা সভা ও মাক্স বিতরন সাতক্ষীরা এক প্রকৌশলীর বাড়িতে দূর্ধর্ষ ডাকাতি, ১৫ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাসহ বিভিন্ন মালামাল লুট চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবস আজ দেশে স্বাধীনতা রক্ষা ও গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে কাজ করার জন্য পুলিশ সদস্যদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙাতে শিক্ষক সমিতির দাবি কুড়িগ্রাম সদর থানার উপ-পরিদর্শকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরওয়ানা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে মৃত্যু ৩ চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত ৯৮৯ জন,সংক্রমণের হার ৩৯ দশমিক ৯৫ বিজিবি ঠাকুরগাঁও সেক্টর আন্তঃ ব্যাটালিয়ন ভলিবল প্রতিযোগিতা-২০২২ এর উদ্বোধন নীলফামারীতে গ্রামের বিভিন্ন রাস্তাঘাট উন্নয়নে মাটি কাটার কাজ করছে,১৩ হাজার ৫৫১ জন শ্রমিক
নীলফামারীতে ধান কাটতে গিয়ে গুরুতর জখম দিনমজুর।

নীলফামারীতে ধান কাটতে গিয়ে গুরুতর জখম দিনমজুর।

মোঃ হারুন উর রশিদ,স্টাফ রিপোর্টার,
নীলফামারী সদর উপজেলায় পৈত্রিক জমিতে ধান কাটতে গিয়ে বিরোধী পক্ষের আঘাতে মালিকের ৬ জন শ্রমীক গুরুতর সহ মোট ৯ জন আহত হয়েছেন। আহতরা সকলে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শনিবার দুপুরে উপজেলার চাপড়া সরমজানী ইউনিয়নের যাদুরহাট, বেড়াডাঙ্গা হিন্দুপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

আহতরা হলেন ১। মো. রতন, ২। মোঃ সেলিম, ৩। সামচুরুল , ৪। মোঃ রানা, ৫। রেজুউল, ৬। ময়নুল হোসেন, ৭। মোঃ বাবুল, ৮। হাবিবুর রহমানকে মাথা সহ শরীরের বিভন্ন স্থানে এলোপাথারি পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার চাপড়া সরমজানী ইউনিয়নের যাদুরহাট, বেড়াডাঙ্গা শাহপাড়া এলাকার মৃত হবিবর রহমানের কবলা মূলে ক্রয়সূত্রে পুত্র মোতাহার হোসেন ভোগ দখল করে আসছে। পৈত্রিক ৩.০৫ একর জমিতে চলতি মৌসূমে ইরিধান রোপন করেন এবং ধান কাটতে গেলে একই এলাকার গৌরাঙ্গ ও শ্রী নীল কমল সহ প্রায় শতাধিক লোক জমির উপরে দাড়িয়ে শ্রমীকদের এলোপাথারি মারপিট শুরু করে এবং কর্তনকৃত ধান জোরপূর্বক বাড়িতে নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য ৬০ হাজার টাকা।

সেইসাথে পাশে আম বাগানের আম ছিড়ে নিয়ে যায় ও ২০ টি আকাশমনি গাছ কর্তন করেন। যার আনুমানিক মূল্য ৫০ হাজার টাকা।

জমির মালিক মোতাহার হোসেন বলেন, আমার পৈতৃক জমিতে ধান কাটতে গেলে এলাকার শ্রী শৈলেস চন্দ্রের ছেলে গৌরাঙ্গ (২০) ও মৃত শ্রী বিনোদ রায়ের ছেলে শ্রী নীল কমল সহ প্রায় শতাধীক লোকজন জমির উপরে এসে আমার শ্রমীকদের পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরবর্তীতে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় আমার শ্রমীকদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শুধ তাই নয় আমার আদিয়ার বিশ্বজিৎ রায়ের বাড়িতে গিয়ে বাড়ি ভাংচুর করে প্রায় ২০ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন করে। বিশ্বজিৎ বাধা দিতে গেলে তাকে প্রাণনাশের হুমকী দেয়।

নীলফামারী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রউপ বলেন, এ ঘটনায় মোতাহার হোসেন নিজে বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্যঃ- বেড়াডাঙ্গা ও মহব্বত বাজিতপাড়া মৌজার তফসিল বর্ণিত জমির খতিয়ান নং সি.এস ২৪৫, এস.এ, বি.এস ও বিভিন্ন দাগে ৩.০৫ একর জমি নিয়ে বিরোধ।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST